শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬
ad
২১ এপ্রিল, ২০১৬ ১২:৩৪:১৭
প্রিন্টঅ-অ+
পাঁচবিবিতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত ১৪
জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে প্রচার-প্রচারণাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর মধ্যকার সংর্ঘষে কমপক্ষে ১৪ জন কর্মী-সমর্থক আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাত ৮ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এসময় একই ইউনিয়নের ধুরইল গ্রামের আব্দুল কুদ্দুস, টিপু সুলতান ও ফকরুদ্দিনসহ ১৪ জন আহত হন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আগামী ২৩ এপ্রিল আসন্ন ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে কুসুম্বা বোর্ড ঘর এলাকায় আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীদের পক্ষে মাইকিং, মিছিলসহ প্রচার-প্রচারণা চলছিল। এরই এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়া এবং ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে।

এতে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১৪ জন কর্মী-সমর্থক আহত হন। আহতদের পাঁচবিবি-মহিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে গুরুতর ৩ জনকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে ও বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ ঘটনার জন্য আওয়ামী লীগ প্রার্থী জিহাদ মন্ডল ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মুক্তার হোসেন একে অপরকে দোষারোপ করেছেন।

পাঁচবিবি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ১০ জনকে আটক করা হয়েছে।
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

দেশজুড়ে এর অারো খবর