শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬
ad
  • হোম
  • দেশজুড়ে
  • ছেলের গুলিতে বাবার মৃত্যুর ঘটনায় মায়ের মামলা
১৮ এপ্রিল, ২০১৬ ১১:২৩:১৪
প্রিন্টঅ-অ+
ছেলের গুলিতে বাবার মৃত্যুর ঘটনায় মায়ের মামলা

কেরানীগঞ্জে ‘নেশার টাকা না পেয়ে’ বাবাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন মা।
Related Stories

    ‘মাদকাসক্ত ছেলের’ পিস্তলের গুলিতে বাবার মৃত্যু

রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে নিহতের স্ত্রী আফিলা বেগম বাদী হয়ে এ মামলা করেন বলে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এসআই মো. সাইদুজ্জামান জানান।

মামলায় নিহতের ছোট ছেলে মো. তমিজ উদ্দিন ওরফে তমুকে (২৫) আসামি করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে তমু তলাতক রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মাদকাসক্ত তমুই রোববার হযরতপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামে তাদের বাড়িতে তার বাবা মো. মমতাজ উদ্দিনের (৬০) গায়ে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করে বলে পুলিশের ভাষ্য।  

মামলার বারত দিয়ে এসআই সাইদুজ্জামান বলেন, রোববার দুপুরে মমতাজ উদ্দিন জমিতে কাজ শেষে বাড়িতে ফিরে ঘরে বসে চিড়া খাওয়ার সময় তমু তার কাছে এসে ৫০০ টাকা দাবি করে।

মমতাজ  মাদকাসক্ত ছেলেকে টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তমু কোমর থেকে পিস্তল বের করে বাবাকে গুলি করে পালিয়ে যায়। বুকের ডান পাশে গুলিবিদ্ধ মমতাজ হাসপাতালে নেওয়ার পথেই মারা যান বলে উল্লেখ করা হয়েছে মামলার এজাহারে।

রোববার বিকালে পুলিশ মমতাজের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এসআই সাইদুজ্জামান বলেন, “তমু মাদকাসক্ত। প্রায়ই সে মাদকের টাকার জন্য বাড়িতে ভাংচুর চালাতো, টাকা না দিলে পরিবারের লোকজনকে মারধর করত, মেরে ফেলার হুমকি দিত।”

মমতাজ উদ্দিনের চার ছেলে ও দুই মেয়ের মধ্যে তমু সবার ছোট। সে ‘বখাটে প্রকৃতির’ এবং ‘মাদকাসক্ত’ বলে স্থানীয়দের ভাষ্য।

হযরতপুর ইউনিয়নে পুলিশের ‘চিহ্নিত সন্ত্রাসী’ রানা মোল্লার সহযোগী হিসেবেও তমু কাজ করতো বলে এলাকাবাসীর তথ্য।
 
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

দেশজুড়ে এর অারো খবর