মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬
ad
  • হোম
  • দেশজুড়ে
  • সিলেট নার্সিং কলেজ হোস্টেলে ফাঁটল, সরিয়ে নেয়া হয়েছে ছাত্রীদের
    |    
১৬ এপ্রিল, ২০১৬ ২০:৫৬:০৪
প্রিন্টঅ-অ+
সিলেট নার্সিং কলেজ হোস্টেলে ফাঁটল, সরিয়ে নেয়া হয়েছে ছাত্রীদের
ভবনে ফাটল দেখা দেওয়ায় সিলেট নার্সিং কলেজের ছাত্রী  হোস্টেল  থেকে শিার্থীদের চলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপ।ছাত্রী নিবাসের চারতলা ভবনে ফাটল দেখা  দেওয়ায় শনিবার সকালে সেখানকার ৩৭৪ জন শিার্থীকে এ নির্দেশ দেওয়া হয়। বেলা ১২ টায় সিলেট নার্সিং কলেজে গিয়ে  এ প্রতিনিধি দেখেন, ছাত্রীরা নিজের মালামাল নিয়ে হোস্টেল ত্যাগ করছেন। অনেক অভিভাবকরা এসেও ছাত্রীদের নিয়ে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে অধ্য শিল্পী চক্রবর্তী বলেন,ভূমিকম্পের পর ভবনটিতে ফাটল দেয়ার পর থেকে ছাত্রীরা আতঙ্কে ছিলেন। তাই তাদের অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।ভূমিকম্পে ফাটল দেখা দেওয়ায় রাতেই সিলেট এমএজি ওসমানী  মেডিকেল কলেজের পরিচালকসহ কয়েকজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা  হোস্টেল পরিদর্শনে করে ফাটলে তেমন  কোনো সমস্যা হবে না জানিয়ে ছাত্রীদের সেখানেই থাকার পরামর্শ দেন বলে জানান তিনি।শিল্পী চক্রবর্তী বলেন, পরে প্রকৌশলীরা এসেও ফাটল পরীা করেন। তারা এখনও ভবনটিকে ঝুঁকিপুর্ণ বলছেন না।শিার্থী তামান্না ইসলাম ও নাসিমা আক্তার বলেন, বুধবার রাতে ভূমিকম্পে কলেজের চার তলা ভবনে প্রায় অর্ধশতাধিক ফাটল  দেখা  দেয়। শনিবার সকালে বৃষ্টির পর দেয়াল থেকে পলেস্তার খসে পড়ায় কর্তৃপ হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়ায় অন্যত্র চলে যাচ্ছি।১৯৮২ সালে সিলেট নার্সিং ট্রেনিং  সেন্টারের কার্যক্রম শুরু হয়। চার তলা বিশিষ্ট ভবনের নিচতলায় চলত একাডেমিক কার্যক্রম। আর বাকি তলাগুলোতে ছাত্রীদের আবাসনের ব্যবস্থা ছিল।২০১১ সালে  ট্রেনিং সেন্টারটি সিলেট নার্সিং কলেজে রূপান্তরিত হলে ভবনটিতে ছাত্রীদের আবাসনের ব্যবস্থা করা হয়। ২৫০ আসনের ছাত্রী নিবাসে বর্তমানে ৩৭৪ জন ছাত্রী থাকছেন।
 
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

দেশজুড়ে এর অারো খবর