বিকাল ৩:৩৭, শুক্রবার, ২৪শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ রাজনীতি / সময়-সুযোগ মতো রাজপথের আন্দোলন: মির্জা ফখরুল
সময়-সুযোগ মতো রাজপথের আন্দোলন: মির্জা ফখরুল
জানুয়ারি ১৪, ২০১৭

বিএনপি সময়-সুযোগমতো আবারো রাজপথে আসবে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, আমরা একটা কথা পরিষ্কার করে বলতে পারি, উই আর কমিটেড উইল ফাইট টু দ্য লাস্ট (আমরা শেষ পর্যন্ত লড়ে যাব)।  শনিবার দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সেমিনার কক্ষে ‘ডেমোক্রেসি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বাংলাদেশ’র উদ্যোগে কবি আবদুল হাই শিকদার রচিত ‘জ্যোতির্ময় জিয়া এবং কালো মেঘের দল’ গ্রন্থের চতুর্থ সংস্করণের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন ফখরুল।

মির্জা ফখরুল বলেন, আন্দোলন একটা বিজ্ঞান ও বিভিন্ন কৌশলের ব্যাপার। রাজনীতিতে উত্থান-পতন আছে, কখনো আমার ভালো সময় যাবে, কখনো খারাপ সময় যাবে। আমরা প্রতিবার রাজপথে আসছি, সময়-সুযোগমতো অবশ্যই আবারো রাজপথে আসবো। বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমরা গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনবার জন্য, শহীদ জিয়াউর রহমানের আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও সংগ্রাম-লড়াই করবো। সেই লড়াইয়ে সফল হব, ইনশা আল্লাহ। এর আগে বিএনপির রাজপথে না থাকার সমালোচনা করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বিএনপি খালেদা জিয়ার ওপর সব দায়-দায়িত্ব দিয়ে ভুল করছে।

তিনি বলেন, বিএনপির নেতাদের বড় দলের অহমিকা ছাড়তে হবে। ছোট-বড় সব বিরোধী দলের সঙ্গে আলোচনা করে সম্মিলিত যুক্তফ্রন্ট গঠনের কথা চিন্তা করতে হবে। খালেদা জিয়াকে দলের কারাবন্দি নেতাকর্মীদের পরিবারের সঙ্গে নিয়মিত ফোনালাপ করতে হবে, প্রয়োজনে তাকে রাস্তায় নামতে হবে। এর জবাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, উনার কথাগুলো আমরা শ্রদ্ধার সঙ্গে নিয়েছি। তবে একটা কথা না বললেই নয়, আমরা লড়াই করছি একটা ফ্যাসিস্ট শক্তির সঙ্গে। এই এক বছরে আমাদের হাজারের ওপরে নেতা-কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে, পুলিশ গুলি করে মেরেছে। পাঁচশ’র ওপরে আমাদের নেতা-কর্মী গুম হয়ে গেছে, হাজার হাজার নেতা-কর্মী পঙ্গু হয়েছে, ক্রাচে ভর করে এখনো আসে, কেউ রিকশা চালায়। গোটা বাংলাদেশে এখন বিএনপি মানেই হচ্ছে আসামি, বিএনপি মানেই হচ্ছে কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে অথবা জেলখানায় থাকতে হবে। বিএনপি মানেই হচ্ছে তাকে রাতের অন্ধকারে হত্যা করা হবে অথবা এলাকা থেকে পালিয়ে অন্য জায়গায় থাকতে হবে। বিএনপি মহাসচিব বলেন, এই সরকার তার ফ্যাসিস্ট বাহিনী দিয়ে নির্মম নির্যাতনে বিএনপিকে ধ্বংস করার জন্য কাজ করছে। তবে সেটা কোনোদিনও সম্ভব হবে না। এত কিছুর পরও তারা আমাদের একজন নেতা-কর্মীকেও বিচ্যুৎ করতে পারেনি। এখানেই বিএনপি ও প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের শক্তি। সংগঠনের সভাপতি আশরাফ উদ্দিন বকুলের সভাপতিত্বে এবং মহাসচিব জাহাঙ্গীর আলম মিন্টুর পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন-ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ, সিনিয়র সাংবাদিক মাহফুজউল্লাহ, গ্রন্থের লেখক কবি আবদুল হাই শিকদার প্রমুখ।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top