ভোর ৫:৪৭, শুক্রবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং
/ জাতীয় / সঠিক ইসলাম চর্চায় দেশে শতাধিক মাদ্রাসা হচ্ছে
সঠিক ইসলাম চর্চায় দেশে শতাধিক মাদ্রাসা হচ্ছে
জুন ১৮, ২০১৭

ইসলামের আদর্শ মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিপ্রায়ে প্রাথমিকভাবে সারাদেশে ১১০ টি মাদ্রাসা তৈরি হচ্ছে বলে জানালেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ। রোববার সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন আয়োজিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ও মহানগরের নেতাদের সঙ্গে ইসলামিক ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে মতবিনিময় সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এ তথ্য জানান।

মাহবুব-ইল-আলম হানিফ বলেন, আমরা সাধারণ ইফতার মাহফিলে কোনো রাজনৈতিক কথা বলতে চাই না। এসব বলতে গেলে রোজাদার মানুষ আহত হন এটা আমরা বুঝি। কিন্তু বেগম খালেদা জিয়া ইফতার মাহফিলের নামে যেসব মিথ্যাচার করছেন, আক্রমণাত্মক বক্তব্য দিচ্ছেন, রাজনৈতিক সুবিদা হাসিলের চেষ্টা করছেন তা কোনোভাবেই ইসলাম সমর্থন করে না। আমরাও করি না। তাই অনিচ্ছা সত্বেও এসবের জবাব দিচ্ছি না হলে এসব মিথ্যাচার প্রতিষ্ঠিত হয়ে যাবে। তিনি বলেন, গেল সপ্তাহে চট্টগ্রামে যে অনাকাঙিখত ঘটনা ঘটল।

এতে প্রায় অর্ধশতাধিক মানুষ মারা গেল। আমরা এতে প্রচন্ড রকমভাবে আহত হই। এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী সেদিনই ঘটনাস্থলে যান ত্রাণ ও দূর্যোগ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন মায়া, প্রধানমন্ত্রীর মূখ্যসচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী। আমরা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ও আমাদের দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে যাই। সেখানে সাধ্যমত সহায়তা করি। এবং বিপর্যস্থ পরিবারের স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে না আসা পার্যন্ত তাদের পাশের থাকার আশ্বাস দেই। আর এর এক সপ্তাহ পর বিএনপি খবর নিতে যায় সেখানে কী হচ্ছে। এর আগে শুধু আওয়ামী লীগের বিষাদগার ছাড়া কিছু করেনি। তারো হয়তো প্রস্তুতিই নিয়েছিল সেখান থেকে ফিরে বলবে আওয়ামী লীগ সরকার কোনো সহয়তা করছে না।

হানিফ বলেন, সুইডেন হচ্ছে সে রাষ্ট্র যে রাষ্ট্রটি স্বাধীন বাংলাদেশের স্বীকৃতি প্রদানের পাশাপাশি স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশের নানা সহায়তা দিয়ে বাংলাদেশের মানুষের জীবনমান উন্নয়নের চেষ্টা করে। স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর প্রথমবারের মতো সে রাষ্ট্রটিতে বাংলাদেশের কোনো রাষ্ট্রপ্রধান ভ্রমন করেন। এরকম একটা বিষয়কে সাধুবাদ না জানিয়ে তিনি বলছেন পাহাড়ী মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে আর প্রধানমন্ত্রী নাকি আনন্দ ভ্রমনে গেছেন। এই রমজানের মাসে এমন মিথ্যাচার তারই মানায় যার ইসলাম ধর্ম পালনের কোনো নজির নাই। সকল ধর্ম বর্ণের মানুষ যেন এক সঙ্গে শান্তিতে বাস করতে পারে সে জন্য সকেলের সহযোগিতা কামনা করেন। সেই সঙ্গে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হায়াৎ বৃদ্ধির জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন হানিফ। ইসলামের ফাইন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ। আলোচনা শেষে ইফতার ও ইফতার শেষে মোনাজাতে অংশ নেন অনুষ্ঠানের অতিথিরা।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top