সকাল ৮:১৬, বুধবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং
/ আর্ন্তাজাতিক / যৌনদাসী’ হিসেবে বিক্রির আগ মুহূর্তে ব্রিটিশ মডেল উদ্ধার
যৌনদাসী’ হিসেবে বিক্রির আগ মুহূর্তে ব্রিটিশ মডেল উদ্ধার
আগস্ট ৮, ২০১৭

করতোয়া ডেস্ক : ইতালিতে এক ব্রিটিশ মডেলকে অপহরণের পর তাকে মধ্যপ্রাচ্যে যৌনদাসী হিসেবে বিক্রি করে দিতে চেয়েছিল অপহরণকারীরা। এ নিয়ে অনলাইনে দর কষাকষিও চলছিল। অবশ্য, শেষ পর্যন্ত ক্লো অ্যালিং নামের এই ব্রিটিশ মডেলকে জিম্মিদশা থেকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে ইতালীয় পুলিশ। অ্যালিং ও তার আইনজীবীর সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ২০ বছর বয়সী ক্লো অ্যালিং বন্দি থাকা অবস্থায় কেমন ছিলেন, অপহরণকারীদের কাছ থেকে কী ধরনের আচরণ পেয়েছেন তা ওই প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয়েছে। বিবিসি জানায়, ‘ব্ল্যাক ডেথ’ নামে একটি গ্রুপ তাকে অপহরণ করে ছয়দিন আটকে রাখে। পরে ইতালির পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

 ওই মডেল একটি ফটো শ্যুটে অংশ নেয়ার জন্য মিলানে গিয়েছিলেন। মিলানের উদ্দেশ্যে বাড়ি ছাড়ার ২৬ দিন পর রবিবার (৭ আগস্ট) নিজ বাড়িতে ফিরেছেন ক্লো অ্যালিং। অ্যালিংকে উদ্ধারের পর পুলিশ জানিয়েছিল, মিলানে নামার পরই দুই ব্যক্তি ঐ নারীকে আক্রমণ করে এবং নেশার ইনজেকশন দিয়ে তাকে অজ্ঞান করে। এরপর একটি ব্যাগের ভেতর ঢুকিয়ে তাকে গাড়ির বুটে তোলা হয় এবং টুরিন শহরের কাছে এক জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশের তদন্ত বিভাগ বলছে, অপহরণকারীরা বেশ কয়েকটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নারীদের অনলাইনে নিলামে তোলে। সাইটগুলিতে প্রতিটি নারীর ছবির সাথে তাদের বর্ণনা এবং প্রাথমিক মূল্য দেওয়া ছিল। তবে ছবিতে দেয়া নারীদের সবাইকে একই ব্যক্তিরা অপহরণ করেছে কি না, তা এখনও জানা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন তারা।

 কর্মকর্তারা জানান, জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তি জানিয়েছে যে তারা ‘ব্ল্যাক ডেথ গ্রুপ’ নামে একটি অপরাধী চক্রের সদস্য যাদের মূল ব্যবসা হচ্ছে নারী পাচার। অ্যালিং-এর আইনজীবী পেসকি দাবি করেছেন, তার মক্কেলকে মধ্যপ্রাচ্যে যৌনদাসী হিসেবে কারও কাছে বিক্রির পরিকল্পনা করছিল অপহরণকারীরা। অ্যালিং অপহরণকারীদের সঙ্গে কেনাকাটা করতে গিয়েছিলেন কারণ তাকে মৃত্যুর হুমকি দেয়া হয়েছিল। অ্যালিংকে বলা হয়েছিল আশেপাশে অনেকে তার গতিবিধির ওপর নজরে রাখছে। পালানোর চেষ্টা করলে তাকে মেরে ফেলারও হুমকি দেওয়া হয় বলে জানান আইনজীবী পেসকি। ‘তাই অ্যালিং ভাবলেন অপহরণকারীদের সঙ্গে যাওয়াই হবে সবচেয়ে ভালো কাজ।

 অপহরণকারী এক ব্যক্তি অ্যালিংকে বলেছিল যে সে তাকে মুক্ত করতে চায? তা যেভাবেই হোক’। উদ্ধারের পর অ্যালিং বন্দিদশায় নিজের অনুভূতির প্রসঙ্গ টেনে বলেছেন তিনি মৃত্যুর দুয়ার থেকে ফিরে এসেছেন। অ্যালিং ওই ঘটনাকে জীবনের ‘ভয়াবহ অভিজ্ঞতা’ হিসেবে বর্ণনা করে বলেছেন, প্রত্যেক মুহুর্তে তিনি তার জীবন নিয়ে শঙ্কার মধ্যে ছিলেন। আমি ইতালি ও যুক্তরাজ্যের কর্তৃপক্ষের প্রতি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ, তাদের কারণেই আমি নিরাপদে বেঁচে ফিরেছি” বলেছেন ব্রিটিশ মডেল ক্লো অ্যালিং। এই ঘটনাটি নিয়ে ইতালি, পোল্যান্ড এবং যুক্তরাজ্যে যৌথভাবে তদন্ত চলছে।

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top