রাত ১১:৩২, শুক্রবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ খেলাধুলা / মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সেলোনার ডার্বি জয়
মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সেলোনার ডার্বি জয়
সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৭

শিরোপার দাবিদার রিয়াল মাদ্রিদ ও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ ড্র করেছিল দিনের শুরুর ম্যাচে। এতে করে বার্সেলোনার সামনে ছিল লা লিগা পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ওঠার সুযোগ। সেটা ভালোভাবে কাজে লাগিয়েছে এর্নেস্তো ভালভারদের শিষ্যরা। শনিবার লিগ ডার্বিতে লিওনেল মেসির হ্যাটট্রিকে ৫-০ গোলে এস্পানিওলকে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা।

 

লিগ মৌসুমের প্রথম তিন ম্যাচ জেতার পর ৯ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে কাতালান জায়ান্টরা। দুই পয়েন্ট কমে দ্বিতীয় স্থানে সেভিয়া। অ্যাতলেতিকো ও রিয়াল ৫ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ ও ছয় নম্বরে।

আন্তর্জাতিক বিরতির আগের ম্যাচে আলাভেসের জালে জোড়া গোল করেছিলেন মেসি। এরপর আর্জেন্টাইন তারকা জাতীয় দলের জার্সিতে গত দুই ম্যাচে হতাশার সময় কাটালেও স্পেনে ফিরলেন দুর্দান্ত রূপে। ২৬, ৩৫ ও ৬৭ মিনিটে তিন গোল করেন তিনি। তিন ম্যাচ শেষে ৫ গোলে সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। ন্যু ক্যাম্পে মেসির সঙ্গে এদিন গোল করেছেন জেরার্দ পিকে ও লুই সুয়ারেস। বার্সেলোনায় অভিষেকে উরুগুয়ান স্ট্রাইকারকে পঞ্চম গোল বানিয়ে দেন উসমান দেম্বেলে।

ম্যাচের ঘড়ি আধ ঘণ্টা হওয়ার আগেই ইভান রাকিতিচের কাছ থেকে ডিবক্সের মধ্যে বল পেয়ে গোলমুখ খোলেন মেসি। প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার ডেভিড লোপেজকে কাটিয়ে জালে বল পাঠান ৩০ বছর বয়সী। ৩৫ মিনিটে বার্সা ২-০ গোলে এগিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ আগে রাকিতিচের শট প্রত্যাখ্যান করেন পাউ লোপেজ। এরপর মেসির আকস্মিক গোল। পেনাল্টি বক্সের বাঁপ্রান্তে বল নিয়ে ঢুকে যান বার্সার ১০ নম্বর জার্সিধারী। কিন্তু তার শট পেপে দিওপের গায়ে লেগে বল চলে যায় জর্দি আলবার কাছে, তার ফিরতি পাসে ছয় গজ দূর থেকে লক্ষ্যভেদ করেন মেসি।

দ্বিতীয়ার্ধে এস্পানিওল উইঙ্গার লিও ব্যাপ্তিস্তার জোরালো শট রুখে দেন উমিতি। কিছুক্ষণ পর বার্সা করে তৃতীয় গোল। মেসি বল দেন সুয়ারেসকে। উরুগুয়ান তারকা বল পাঠান আলবার কাছে। তারই পাস থেকে কোনাকুনি শটে হ্যাটট্রিক করেন মেসি। এর আগে লিগে আর্জেন্টাইন তারকা হ্যাটট্রিক করেছিলেন সর্বশেষ ২০১৬ সালের ৩ মার্চ রায়ো ভায়েকানোর বিপক্ষে। স্পেনের শীর্ষ ফুটবল মঞ্চে ৫৫৪ দিনের হ্যাটট্রিক খরা কাটালেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী। লিগে এস্পানিওলের বিপক্ষে এটি মেসির তৃতীয় হ্যাটট্রিক।

বার্সেলোনা ৩-০ গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ৬৮ মিনিটে জেরার্দ দেউলেফিউকে তুলে দেম্বেলেকে সুযোগ দেন ভালভারদে। অভিষেক স্মরণীয় করতে পারেননি তিনি গোল করে। তবে ৯০ মিনিটে ডানপ্রান্ত থেকে লম্বা পাসে সুয়ারেসকে গোল বানিয়ে দেন এ ফরাসি উইঙ্গার। এর তিন মিনিট আগে কর্নার থেকে দুর্দান্ত হেডে চতুর্থ গোল করেছিলেন পিকে। ইএসপিএনএফসি

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top