বিকাল ৫:১১, বুধবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / ভূমিকম্পের ঝুঁকি
ভূমিকম্পের ঝুঁকি
আগস্ট ১২, ২০১৭

মাঝে মাঝেই ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে দেশ। বাংলাদেশের বেশির ভাগ এলাকা ভূমিকম্পপ্রবণ। অনেক আগে থেকেই বলা হচ্ছে, দেশের অন্তত ২০ জেলা উচ্চ মাত্রার ভূমিকম্প ঝুঁকিতে রয়েছে। দেশের অভ্যন্তরে রয়েছে বেশ কিছু ফল্ট ও সাব-ফল্ট। ফলে যে কোনো সময় ভূমিকম্প হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। একদিকে আমাদের দেশ ঘনবসতিপূর্ণ। অন্যদিকে এখানে এমন অনেক বাড়িঘর তৈরি হয়েছে, যা ভূমিকম্প প্রতিরোধি নয়।

তদুপরি বাড়ছে অপরিকল্পিত নগরায়ন। ১৯৯৯ সালে জাতিসংঘ পরিচালিত রিস্ক অ্যাসেসমেন্ট টুলস ফর ডায়াগনসিস অব আরবান এরিয়াস এগেইনেষ্ট সিসমিক ডিজাস্টার (বডিয়াস) জরিপে ভূ-তাত্ত্বিক ঝুঁকিপূর্ণ বিশ্বের ২০টি শহরের মধ্যে অন্যতম ঢাকা। সরকারি হিসাবে শুধু ঢাকায় ৭৮ হাজার ভবন আছে, যেগুলো ৬ মাত্রার ভূমিকম্প হলেই ভেঙে পড়তে পারে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ভূমিকম্প প্রতিরোধের কোনো উপায় এখনো মানুষ আয়ত্ত করতে পারেনি।

 ঝড়-বৃষ্টি বা আবহাওয়ার মতো এর কোনো পূর্বাভাস দেওয়াও সম্ভব নয়। সে কারণেই ভূমিকম্পে ক্ষয়ক্ষতি যেন কম হয়, সেদিকে আমাদের দৃষ্টি দিতে হবে, প্রস্তুতি নিতে হবে। আমাদের দেশে বিগত দিনে ঘূর্ণিঝড় সিডর- আইলায় দুর্গতদের দুর্দশাগ্রস্ত জীবনের দীর্ঘস্থায়িত্বই সেটা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়। ঘূর্ণিঝড়-জলোচ্ছ্বাসের মতো ভূমিকম্প নিয়ে আগাম কিছু বলা যেহেতু সম্ভব নয়, তাই কালবিলম্ব না করে ভূমিকম্প হলে কী করা উচিত সে বিষয়ে জনসচেতনতা গড়ে তোলায় নিয়মিতভাবে চালিয়ে যেতে হবে। ভূমিকম্পের সময় নিরাপদে থাকা এবং ধ্বংসযজ্ঞের পর কীভাবে নিরাপদস্থানে বেরিয়ে আসতে হবে সেগুলো জানা থাকলে সবার পক্ষেই মাথা ঠান্ডা রেখে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা সম্ভব হবে। এজন্য প্রাতিষ্ঠানিক প্রস্তুতিও গুরুত্বপূর্ণ।

 ভূমিকম্প থেকে রক্ষা পাওয়ার প্রকৃষ্ট উপায় হলো সব ধরনের স্থাপনা দুর্যোগ মোকাবিলার উপযোগী করে গড়ে তোলা। আমাদের দেশে ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড মানা হয় না, এমন অভিযোগই প্রবল। ফলে মাঝারি ধরনের ভূমিকম্পও বাংলাদেশে বিপর্যয়ের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। বড় ধরনের ভূমিকম্প ডেকে আনতে পারে মানবিক বিপর্যয়। দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্যি ভূমিকম্প পরবর্তী বিপর্যয়কর পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমাদের প্রস্তুতি প্রায় নেই বললেই চলে। দুর্যোগ পরবর্তী কঠিন অবস্থা মোকাবিলার জন্য জনশক্তি গড়ে তোলা ও প্রযুক্তিগত সুবিধা অর্জনও জরুরি।

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top