সকাল ১১:৫৮, শনিবার, ২৫শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ রাজনীতি / বিএনপি নির্বাচনে গেলে আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকবে না : ফখরুল
বিএনপি নির্বাচনে গেলে আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকবে না : ফখরুল
সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৭

সরকার শৃঙ্খলিত বলেই রোহিঙ্গা ইস্যুতে তারা কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না বলে অভিযোগ করে অতিদ্রুত এই সমস্যার সমাধানে কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু করার দাবি জানিয়েছে বিএনপি। অন্যদিকে, বিএনপি রাজপথে নেমে এলে এবং আগামী নির্বাচনে গেলে আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকবে না বলে দাবি করেছে দলটি। শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপির ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন।   

ক্ষমতাসীনদের সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, তোমরা (সরকার) আজকে শৃঙ্খলিত আছো বলেই রোহিঙ্গা ইস্যুতেও নিজেরা সঠিকভাবে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারো না। আমরা চাই, দেশের মানুষ চায়- রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান হোক অতিদ্রুত। এই মানুষগুলোকে আশ্রয় দিয়ে তাদেরকে খাদ্য ও চিকিৎসা সহায়তা দেয়া হোক এবং তাদেরকে সম্মানজনকভাবে ফিরে যাওয়ার জন্য কূটনৈতিক প্রক্রিয়া চালু করা হোক। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এক বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি নোংরা রাজনীতি করে না। আওয়ামী লীগই নোংরা রাজনীতি করে। বিএনপি একটি উদারপন্থী, গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। বিএনপিতে সাম্প্রদায়িকতার লেশমাত্র নেই। তিনি দাবি করেন, বিএনপি রাজপথে নেমে এলে এবং নির্বাচনে গেলে আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকবে না। এই কারণে ক্ষমতাসীনেরা বিএনপিকে ভয় পায়। সভাপতির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল দলের নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, এই সরকারকে রুখে দাঁড়াতে হবে। নির্বাচন আদায় করে নিতে হবে। সেই নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সহায়ক সরকারের অধীনে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আগামী নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে। সরকার নানা অজুহাতে বিএনপিকে আবারও নির্বাচনের বাইরে রাখতে চায়। কিন্তু তা হতে দেওয়া হবে না।

বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর পরিচালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন-দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, সেলিমা রহমান, ডা. জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, যুগ্ম-মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, ঢাকা মহানগর উত্তরের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

 

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top