সকাল ৬:১৫, বৃহস্পতিবার, ২৩শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / বাল্য বিয়ে বাড়বে ইইউ পার্লামেন্টের উদ্বেগ
বাল্য বিয়ে বাড়বে ইইউ পার্লামেন্টের উদ্বেগ
এপ্রিল ১১, ২০১৭

বাংলাদেশে বাল্য বিয়ে নিরোধ সংক্রান্ত নতুন আইনে বিদ্যমান ফাঁক ফোঁকরের সুযোগ নিয়ে বাল্য বিয়ের ঘটনা বেড়ে যাবে বলে উদ্বেগ জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন পার্লামেন্ট। সম্প্রতি পাস করা ওই আইনের সেসব ফাঁকফোকর বন্ধে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছে ইইউ পার্লামেন্ট। গত বৃহস্পতিবার এ আহবান জানিয়ে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের নিজস্ব ওয়েবসাইটে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে ইইউর হিউম্যান রাইটস বিভাগ। ইউনিসেফের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশে বাল্যবিয়ের হার সবচেয়ে বেশি।

 

 ১৮ বছর বয়স হওয়ার আগেই বাংলাদেশের ৬৬ শতাংশ মেয়ের বিয়ে হয়ে যায়। এরই মধ্যে নতুন বাল্য বিয়ে নিরোধ আইন পাশ করেছে দেশটির সরকার। ওই আইনে মেয়ে ও ছেলেদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স আগের মতো ১৮ ও ২১ বছর বহাল থাকলেও বিশেষ প্রেক্ষাপটে তার কম বয়সেও বিয়ের সুযোগ তৈরি হয়েছে। এতেই উদ্বেগ জানিয়ে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট সদস্যরা বলেন, নতুন আইনে বাল্য বিয়ে বৈধতা পাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে।

 

ইউরোপীয় পার্লামেন্ট সব ধরনের জোরপূর্বক বিয়ে ও বাল্য বিয়ের ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে বলেছে, তারা বাংলাদেশের বাল্য বিয়ের সংখ্যাধিক্য কমানোর প্রচেষ্টা থেকে আসার ঘটনায় উদ্বিগ্ন। এমপিরা এ সময় বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহবান জানান, বাংলাদেশ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের প্রতি প্রতিশ্রুতিশীল থাকবে এবং লৈঙ্গিক সমতা ও নারীর অধিকার নিশ্চিত করবে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top