দুপুর ১২:২৪, মঙ্গলবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / ফের সোনার চালান
ফের সোনার চালান
ডিসেম্বর ২৭, ২০১৬

 


হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে একটি বিমান থেকে সাড়ে ১১ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়েছে। বিমান বন্দরের কাস্টমস কর্মকর্তারা গত সোমবার সোনার বারগুলো বিমানের আসনের নিচ থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় জব্দ করে।

 কাতার এয়ারওয়েজের ওই বিমানটি গত সোমবার শাহজালালে অবতরণ করে। তবে এর সঙ্গে কাউকে আটক করা যায়নি। উদ্ধার করা সোনার বাজার মূল্য আনুমানিক ছয় কোটি টাকা। তবে একের পর এক সোনার চালান ধরা পড়লেও এর মূল হোতারা রয়ে গেছে ধরা ছোঁয়ার বাইরে।  প্রায় প্রতিদিনই দেশের কোনো না কোনো বিমান বন্দরে সোনা চোরাচালানের ঘটনা ঘটছে।

 এতে মূল হোতারা থেকে যায় ধরা ছোঁয়ার বাইরে। বিভিন্ন সময় এসব নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলেও সোনা চোরাচালান বন্ধ করা যাচ্ছে না। চোরাচালানিরা বাংলাদেশকে রুট হিসেবে ব্যবহার করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। আমাদের প্রশ্ন কেন সোনা চোরাচালানিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না ? দুর্বৃত্তদের অপতৎপরতা দ্রুত রোধ করা না গেলে দেশের বন্দরগুলো ঝুঁকিতে পড়বে বলেই আমরা মনে করি।

 সোনা চোরাচালানিদের রয়েছে আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক। দুর্বৃত্তদের সঙ্গে অনেক সময় বন্দরে কর্মরতদের যোগসাজসেরও প্রমাণ পাওয়া যায়। বিভিন্ন সময় আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তাদের আটক করলেও আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে জেলহাজতে থেকে বের হয়ে তারা ফের অপরাধমূলক কাজ চালিয়ে যায়। এ অবস্থা চলতে দেয়া যাবে না। কঠোর হস্তে সোনা চোরাচালান রোধ করতে হবে। পাশাপাশি বন্দরগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top