বিকাল ৩:৪২, শুক্রবার, ২৪শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ খেলাধুলা / নাদালের ‘সুইট সিক্সটিন’
নাদালের ‘সুইট সিক্সটিন’
সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৭

কেভিন অ্যান্ডারসনের সামনে ছিল ইতিহাসের হাতছানি। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার এই টেনিস খেলোয়াড় গড়তে পারলেন না প্রতিদ্বন্দ্বিতাই। তাকে সরাসরি সেটে উড়িয়ে দিয়ে ইউএস ওপেন শিরোপা জিতেছেন স্প্যানিশ কিংবদন্তি রাফায়েল নাদাল।

নাম্বার ওয়ান নাদাল নিউ ইয়র্কের ফ্লাশিংমিডোতে রোববারের ফাইনালে ২ ঘণ্টা ২৭ মিনিটের লড়াইয়ে ম্যাচ জিতেছেন ৬-৩, ৬-৩, ৬-৪ গেমে।

৩১ বছর বয়সি নাদালের এটি তৃতীয় ইউএস ওপেন শিরোপা। আর ক্যারিয়ারের ১৬তম গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা। ১৯ গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা নিয়ে তার ওপরে আছেন কেবল সুইস কিংবদন্তি রজার ফেদেরার।

এই নিয়ে চতুর্থবার বছরের চারটি গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপাই ভাগ করে নিলেন নাদাল ও ফেদেরার। প্রথমবার এমনটা হয়েছিল ১১ বছর আগে, ২০০৬ সালে। অন্য দুবার ২০০৭ ও ২০১০ সালে।

২০১৩ সালের পর এই প্রথম একই বছরে দুটি গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জিতলেন নাদাল। গত জুনে জিতেছিলেন ফ্রেঞ্চ ওপেন। এ বছরের অন্য দুটি গ্র্যান্ড স্লাম প্রতিযোগিতা অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও উইম্বলডন জিতেছেন ফেদেরার।

অথচ চোট নাদালের ক্যারিয়ারটাই এক পর্যায়ে হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছিল। সেখান থেকে কী দুর্দান্তভাবেই না ফিরেছেন। একের পর এক প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে চলেছেন। গত মাসে ২০১৪ সালের পর প্রথমবার উঠেছেন র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে।

এ বছরটাকে তাই তো ‘অবিশ্বাস্য’ বলছেন নাদাল, ‘অবশ্যই আমার জন্য বিশেষ দুটি সপ্তাহ কাটল। কয়েক বছর বিভিন্ন ঝামেলা, চোট, ভালো না খেলার পর এ বছরে যা কিছু হলো; এটা অবিশ্বাস্য। মৌসুমের শুরু থেকে এটা ছিল খুবই আবেগঘন।’

চাচা এবং দীর্ঘদিনের কোচ টনির পাশে নাদালের একসঙ্গে কাজ করা শেষ গ্র্যান্ড স্লাম ছিল এই ইউএস ওপেন। নাদালের এই নাদাল হয়ে ওঠার ক্ষেত্রে বড় অবদান তার চাচার। তাই তো চাচার প্রতি স্প্যানিশ তারকার বিনয়, ‘আমার জন্য তিনি যা কিছু করেছেন তার জন্য ধন্যবাদ যথেষ্ট নয়। সম্ভবত তাকে ছাড়া আমি টেনিসই খেলতে পারতাম না। এটা দারুণ যে তার মতো কেউ একজন ছিল, যিনি সব সময় আমাকে অনুপ্রাণিত করেছেন। অবশ্যই তিনি আমার জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের একজন।’

অ্যান্ডারসন এবারই প্রথম কোনো গ্র্যান্ড স্লাম প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠেছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকার কোনো টেনিস খেলোয়াড় গ্র্যান্ড স্লাম ট্রফি জিততে পারেনি। অ্যান্ডারসনের সামনে ছিল তাই ইতিহাস গড়ার হাতছানি। নাদালের সঙ্গে মুখোমুখি আগের চারবারের দেখায় প্রতিবারই তিনি হেরেছিলেন। হারলেন আরেকবার, বাধা হতে পারলেন না নাদালের ‘সুইট সিক্সটিন’-এর পথে।
 

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top