রাত ৪:২১, মঙ্গলবার, ১৬ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং
/ রাজনীতি / জনগণই এই সরকারকে বিদায় করবে : রিজভী
জনগণই এই সরকারকে বিদায় করবে : রিজভী
এপ্রিল ১৮, ২০১৭

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন সরকারকে ‘জুলুমবাজ সরকার’ আখ্যা দিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষ কোনোদিন কোনো জুলুমবাজ সরকারকে ক্ষমতায় রাখেনি। তাই জনগণই এই সরকারকে ক্ষমতা থেকে বিদায় করবে। মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে মওলানা ভাসানী মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল মোহাম্মদপুর থানার কর্মিসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণ, নির্বাচন ও ভোটকে তালাক দিয়ে এখন জোর করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চাচ্ছেন। জনমতকে অগ্রাহ্য করে নিজের ক্ষমতাকে প্রলম্বিত করতে দিল্লীর দরবারে দেশের সবকিছু উজাড় করে দিয়ে এসেছেন। কারণ, বাংলাদেশের জনগণ তার (শেখ হাসিনা) সাথে নেই, আছে একমাত্র ভারত ও দিল্লী। সেজন্য তাদেরকে খুশি করতে হবে। এ কারণে বাংলাদেশের নিরাপত্তা-প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে তিনি দিল্লীর কাছে সঁপে দিয়েছেন, সমর্পণ করেছেন। এই ধরণের একটি জঘন্য-দেশবিরোধী কাজ করেছেন শেখ হাসিনা।

হেফাজতের সঙ্গে সরকারের ঘনিষ্ঠতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সরকার ঢাকায় হেফাজতে ইসলামের প্রতিবাদ সমাবেশে র‌্যাব-পুলিশ দিয়ে গুলি চালিয়েছিল। তাদেরকে ঢাকা থেকে বিতাড়িত করেছিল। সরকারের মন্ত্রিরা তখন বলেছিলেন, তেঁতুল হুজুর। অথচ আজকে যখন শেখ হাসিনা মাথা নিচু করে মাওলানা আল্লামা শফির দোয়া নিতে যাচ্ছেন, তখন তেঁতুল হুজুর হচ্ছে না? এরা আলেম-ওলামাদের লাঞ্ছিত করে, হত্যা করে। আজকে যখন শেখ হাসিনা দেখছেন- তার পায়ের তলায় মাটি নেই, তখন তিনি হেফাজতের কাছে যাচ্ছেন। এইটা হচ্ছে রাজনৈতিক ভন্ডামি। আওয়ামী লীগের মতো রাজনৈতিক ভন্ডামি আর কেউ করতে পারে না। ক্ষমতাসীন সরকারকে ‘ক্রসফায়ার, গুম-খুন ও বন্দুকযুদ্ধের সরকার’ আখ্যায়িত করে রিজভী বলেন, এরা মানুষকে শান্তি-স্বস্তি দিতে পারে না। তাই এদের হাত থেকে দেশ ও গণতন্ত্রকে বাঁচাতে হবে, তাহলেই আমাদের মুক্তি নিশ্চিত হবে। অন্যথায় কারো কোনো নিরাপত্তা থাকবে না। মহিলা দল ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি পেয়ারা মোস্তফার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আমিনা খাতুনের সঞ্চালনায় এতে মহিলা দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, যুগ্ম-সম্পাদক হেলেন জেরিন খানসহ সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও মহানগরের নেতারা বক্তব্য দেন।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top