রাত ১:২৯, সোমবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / জঙ্গিবিরোধী অভিযান
জঙ্গিবিরোধী অভিযান
সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৭

আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আরও একটি জঙ্গি আস্তানা ধ্বংস করতে সক্ষম হয়েছে। রাজধানীর মিরপুরের দারুস সালাম এলাকার জঙ্গি আস্তানা থেকে বুধবার নারী শিশু সহ সাতজনের দগ্ধ ও ছিন্ন ভিন্ন মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। দু’দিন ধরে ধরে ঘিরে রাখা ‘কমল প্রভা’ নামের বাড়িতে গড়ে ওঠা ওই জঙ্গি আস্তানায় আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পর গত বুধবার সকাল থেকে ধ্বংসস্তুপে তল্লাসি চালিয়ে এই সাতজনের খুলি ও পোড়া অঙ্গপ্রত্যঙ্গ পাওয়ার কথা জানায় র‌্যাব।

র‌্যাবের ধারণা অনুযায়ী, ওই সাতজন হলেন, সন্দেহভাজন জেএমবি সদস্য আব্দুল্লাহ তার দুই স্ত্রী নাসরিন ও ফাতেমা, তিন থেকে নয় বছর বয়সী দুই ছেলে এবং আব্দুল্লাহর দুই কর্মচারি, যাদের নাম জানা যায়নি। দেশে জঙ্গি আস্তানায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযান যেমন নিয়মিত ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে তেমনি জঙ্গিদের আত্মঘাতী হামলায় প্রাণহানির বিষয়টিও এসব ঘটনার অনুষঙ্গে পরিণত হয়েছে।

 জঙ্গিদের আত্মঘাতী হামলায় এ পর্যন্ত র‌্যাব ও পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন। জঙ্গিবাদ বাংলাদেশের মানুষের শত শত বছর ধরে পালন করা উদার ধর্মীয় চেতনার পরিপন্থী। শান্তির ধর্ম ইসলামের সঙ্গে অশান্তি ও অকল্যাণের অপচর্চাকারীদের যে দুরতম সম্পর্ক নেই তা সহজে অনুমেয়। ইসলামে আত্মঘাতী হওয়াকে কবিরা গুনাহ বা গুরুতর অপরাধ হিসাবে বিবেচনা করা হয় এবং কোনো অবস্থায় তা অনুমোদনযোগ্য নয়।

আমরা আশা করব, দেশ ও জাতির বিরুদ্ধে শত্রুতার ভূমিকায় অবতীর্ণ জঙ্গিবাদের অনুসারীদের দমনে সরকারের কড়া মনোভাব আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। জঙ্গিদের ব্যাপারে নিরবচ্ছিন্ন সতর্কতা ও তাদের নির্মূলে লাগসই ব্যবস্থা গ্রহণই পারে দুষ্টক্ষত থেকে সমাজকে মুক্ত করতে। সরকার সঠিক পরিকল্পনার মাধ্যমে জঙ্গিবাদ নির্মূলে সম্ভাব্য সর্বোচ্চ আন্তরিকতার পরিচয় দেবে- এটিই আমাদের প্রত্যাশা।

 

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top