সকাল ১১:৫৮, শনিবার, ২৫শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ অর্থ-বাণিজ্য / ঈদ উপলক্ষে রাজধানীর মসলার বাজার গরম
ঈদ উপলক্ষে রাজধানীর মসলার বাজার গরম
আগস্ট ২৫, ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টার: পবিত্র ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে উত্তপ্ত হতে শুরু করছে রাজধানীর গরম মসলার বাজার। এরইমধ্যে জিরা, লং ও এলাচের দাম বেড়েছে। এই বৃদ্ধির হার ১০ থেকে ২০ ভাগ। খুচরা বিক্রেতাদের অভিযোগ আমদানিকারকরা, আমদানি নির্ভর এসব পণ্যের দাম বাড়িয়েছেন। তবে গত সপ্তাহের তুলনায় আদা-রশুন ও পেয়াজের দাম কেজিতে ৫টাকা কমেছে। কোরবানির ঈদ, মানেই গরম মসলার গরম অবস্থা। সারা বছরের চাহিদার প্রায় অর্ধেকই, এ সময়ে। সুযোগ বুঝে, গরম মসলায় নিজেদের পকেট গরম করতে, ব্যবসায়ীরাও একটুও কার্পন্য করেননা।

 এক মাসের ব্যবধানে পেয়াজের দাম বেড়েছিল প্রায় দ্বিগুন। রাজধানীর বাজারে প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজের দাম এখন ৫৫ টাকা আর আমদানীকৃত পেঁয়াজের কেজি ৫০ টাকা। কোরবানির ঈদের আগে এই দাম আর কমার সম্ভাবনা নেই বলে জানালেন পাইকাররা। এ ছাড়া রসুন, আদার পাশাপাশি অনেক মসলার দামও বাড়তির দিকে বলে জানিয়েছেন তাঁরা। কারওয়ান বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ী হোসেন আহমেদ বলেন, এক মাস ধরে পেঁয়াজের দাম শুধু বেড়েই যাচ্ছে। এ ব্যবসায়ী আরো জানান, রাজধানীর বাজারে প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজের দাম গত এক মাসে ২৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকায়।

 অন্যদিকে আমদানীকৃত ভারতীয় পেঁয়াজের দাম হয়েছে দ্বিগুণ। প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়। দেশের বন্যা পরিস্থিতি এবং ভারতে পেঁয়াজের দাম বাড়ায় কোরবানির ঈদের আগে সব ধরনের পেঁয়াজের দাম আরো বাড়ার আশঙ্কা করছেন পাইকাররা। অন্যদিকে কিছুটা দাম বেড়ে আমদানীকৃত রসুনের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়। এ ছাড়া এখন আদার দামও বাড়তির দিকে।এ ছাড়া কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে দারুচিনি, এলাচ ও জিরার দামও বাড়তে শুরু করেছে বলে জানালেন পাইকাররা।

 

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top