বিকাল ৪:৫৬, বৃহস্পতিবার, ২৩শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ খেলাধুলা / অস্ট্রেলিয়াকে হারানো সম্ভব যদি
অস্ট্রেলিয়াকে হারানো সম্ভব যদি
আগস্ট ১৫, ২০১৭

১১ বছর পর বাংলাদেশে টেস্ট খেলতে আসছে অস্ট্রেলিয়া। বহুল প্রতীক্ষিত এই সিরিজটা কি স্মরণীয় করে রাখতে পারবে বাংলাদেশ? সাকিব, মুশফিকরা পারবেন স্মিথ, ওয়ার্নারদের হারাতে? বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার বিশ্বাস, অস্ট্রেলিয়াকে হারানো সম্ভব। তবে এর জন্য গত বছর ইংল্যান্ডকে হারাতে বাংলাদেশ যেমন খেলেছে, তার চেয়ে আরো এক ধাপ ভালো খেলতে হবে বলে মনে করেন ‘ম্যাশ’।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সাফল্য পেতে অভিজ্ঞ চার টেস্ট খেলোয়াড় তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহর ভূমিকাটা গুরুত্বপূর্ণ হবে বলে মনে করেন মাশরাফি। ইএসপিএনক্রিকইনফোকে মাশরাফি বলেছেন, ‘আমি আশা করছি, আমাদের চার সিনিয়র খেলোয়াড় তাদের উইকেটের মূল্য দেবে। তাদের পারফরম্যান্স যেন তরুণদের জন্য অনুকরণীয় হয়। তামিম তার ক্যারিয়ারের সেরা ফর্মে আছে। সে এবং ইমরুল ভালো শুরু এনে দিতে পারে। আমাদের স্পিন বিভাগে আছে সাকিব ও মেহেদী। যদি একজন পেসার তিন-চার উইকেটের ভালো একটা স্পেল করতে পারে, আমাদের যথেষ্ট সম্ভাবনা থাকবে।’

মাশরাফি মনে করেন, খেলোয়াড়দের মানসিক উন্নতিটা সিরিজের আগে তাদের শক্ত অবস্থানে রাখবে। গত দশ মাসে ইংল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কাকে হারানোর পর এই আত্মবিশ্বাসটা বেড়েছে বলে বিশ্বাস মাশরাফির। এই সময়ে অবশ্য বেশ কয়েকটি টেস্টে বাংলাদেশ বাজে পারফরম্যান্স করে হেরেছেও। তবে জয়-পরাজয়ের চেয়ে মানসিকতাটাই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন মাশরাফি, ‘জয় কিংবা পরাজয়ের তুলনায় আরো গুরুত্বপূর্ণ হলো তাদের মানসিকতা। আমি ড্রেসিং রুমের সাক্ষী হয়ে দেখেছি, তাদের মানসিকতা আগের দলগুলোর থেকে আলাদা। এটি যথেষ্ট উৎসাহের ব্যাপার যে তারা লড়াই করছে, যা ফলাফলের চেয়ে বেশি প্রত্যাশিত। টেস্ট সিরিজের আগে তাদের সেরা প্রস্তুতিও হয়েছে।’

তবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভালো করতে হলে ব্যাটসম্যানদের এগিয়ে আসতে হবে বলে মনে করেন প্রাক্তন টেস্ট অধিনায়ক, ‘ধরেন, কেউ ডাবল সেঞ্চুরি করল, কিন্তু বাকিরা কেউ ভালো করতে পারল না। তাও কিন্তু ৪০০ বা ৪৫০ রানের স্কোর হয়ে যায়। সে জন্যই সেট ব্যাটসম্যানদের নিজেদের ইনিংস বড় করতে হবে। যে ৪০ করেছে, তাকে সেঞ্চুরি করতে হবে। ফিফটি করে খুশি থাকলে হবে না।’ 

মিচেল স্টার্ককে ছাড়া বাংলাদেশে আসছে অস্ট্রেলিয়া। স্টার্ককে ছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার বোলিং লাইনআপ শক্তিশালী হবে বলেই মনে করেন মাশরাফি। বাংলাদেশের জন্য সিরিজটা তাই মোটেই সহজ হবে না। তবে খেলোয়াড়দের ওপর চাপ সৃষ্টি না করে ভালো একটা সিরিজের প্রত্যাশা মাশরাফির, ‘আমি খেলোয়াড়দের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে চাই না। তবে ভালো একটা সিরিজের আশা করছি। অস্ট্রেলিয়ার সম্ভাব্য সেরা দলটাই বাংলাদেশে আসবে। কামিন্স, হ্যাজেলউড, লায়ন তাদের বোলিং লাইনআপে আছে। আমাদের দলের জন্য কাজটা সহজ হবে না। তবে আমরা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যা খেলেছি তার চেয়ে যদি এক ধাপ ভালো খেলতে পারি, তাহলে জেতা সম্ভব। তবে ফলফলের নিরিখে আমি খেলোয়াড়দের ওপর চাপ তৈরি করব না।

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top