বগুড়া বুধবার | ১৯ ভাদ্র ১৪২১ | ৭ জিলকদ ১৪৩৫ হিজরি | ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪
ব্রেকিং নিউজ
আর্কাইভ
দিন :
মাস :
সাল :
এই সংখ্যার পাঠক
১৪১৪৭২
সার্চ
হবিগঞ্জের সাতছড়ি থেকে আবারও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :
হবিগঞ্জের সাতছড়ির পাহাড় থেকে আবারও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে র‌্যাব। গতকাল মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফায় অভিযানে গভীর বন থেকে দু'টি গর্ত খুঁড়ে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এখানে পাহাড়ে আরও বাংকার, অস্ত্র এবং গোলাবারুদ মজুদ থাকতে পারে বলে ধারণা করছে র‌্যাব। উদ্ধারকৃত এসব অস্ত্রের সবগুলোই সচল রয়েছে।
হবিগঞ্জের সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করে র‌্যাব -করতোয়া
নির্বাচিত সংবাদ
ভাই এবং তারা তিনজন...
মানিক মোর্শেদ ওরফে মনি ভাই ও রাজা দুই ভাই। বড় ভাই মনি একজন গড ফাদার। তার ছোট ভাই রাজা তারই হয়ে সমাজে নানান সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালায়। ঘটনাক্রমে দুই ভাইয়ের সঙ্গে পরিচয় হয় চিত্রনায়িকা নির্ঝরের সঙ্গে। একসময় বড় ভাই চিত্রনায়িকাকে বিয়ে করতে চায়। কিন্তু তাতে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় ছোট ভাই রাজা। এগিয়ে যায় ঈদের বিশেষ ধারাবাহিক নাটকের গল্প। ফিল্ম ঘরানার এক গল্প নিয়ে মাতিয়া বানু শুকুর রচনায় ও রুমান রুনির নির্দেশনায় নির্মিত হয়েছে বিমেষ ধারাবাহিক নাটক \'ভাই\'। এতে প্রধান চরিত্রে অর্থাৎ \'ভাই\' (মনি ভাই) চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান। তিনি বলেন,\' এতে আমি একজন মন্দলোকের চরিত্রে অভিনয় করেছি। বেশ চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র। রুমান রুনি বেশ চৌকস একজন নির্মাতা। শুটিং চলাকালীন সময়েই বেশকিছু ফুটেজ দেখেছি আমি। আমার নিজেরই অনেক ভালোলেগেছে। দর্শকের ভালোলাগবে এটা নিশ্চিত বলতে পারি।\' \'ভাই\' টেলিফিল্মে তারিক আনাম খানের ছোট ভাই রাজা চরিত্রে অভিনয় করেছেন এই সময়ের ব্যস্ত অভিনেতা সজল। সজল বলেন,\' আমার গেটআপ দেখেই দর্শক বুঝতে পারবেন যে এই নাটকে আমি একটু ব্যতিক্রমধর্মী চরিত্রে অভিনয় করেছি। আমার চরিত্রটি যদিও নেগেটিভ একটি চরিত্র তারপরও দর্শকের ভালোলাগবে নতুন আমাকে। রুমান রুনির \'চিত্রাঙ্গদা\' টেলিফিল্মের আমি কাজ করেছিলাম। তিনি অনেক যত্ন নিয়ে কাজ করেন। \'ভাই\' দর্শকের প্রত্যাশা পূরণে সক্ষম হবে বলেই আমি মনেকরি।\' এই বিশেষ ধারাবাহিক নাটকে একজন চিত্রনায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন লাক্সতারকা নাজিয়া হক অর্ষা। অর্ষা বলেন, \' এই সময়ে আমি খুব কম কাজ করছি। গল্প ভালো না হলে কাজ করছিইনা বলা চলে। মাতিয়া বানু শুকু আপার লেখা এই নাটকের গল্প অনেক ভালোলেগেছে। তাই কাজটি করেছি। আমি ভীষণ উপভোগ করেছি।\' \'ভার্সেটাইল মিডিয়া\' প্রযোজিত \'ভাই\' বিশেষ ধারাবাহিক নাটকটি আসছে ঈদে একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার হবে। এদিকে তারিক আনাম খান এই মুহুর্তে লন্ডনে আছেন। সেখানে তিনি তানিয়া আহমেদ পরিচালত প্রথম চলচ্চিত্র \'গুডমর্নিং লন্ডন\' এর শুটিং-এ ব্যস্ত রয়েছেন। সেখানে শুটিং শেষ করে তিনি চলতি মাসের মাঝামাঝিতে তিনি দেশে ফিরবেন। এদিকে সজল এরইমধ্যে সুজানা ও মেহজাবিনের সঙ্গে শেষ করেছেন মোহন খানের নির্দেশনায় সাত পর্বের ধারাবাহিক নাটক \'মেঘবালিকার গল্প\'। শেষ হয়েছে সজল অভিনীত চলচ্চিত্র \'রানআউট\'র কাজ। এতে তার বিপরীতে আছেন মৌসুমী নাগ ও রোমানা স্বর্ণা। অর্ষা অভিনীত সেতু আরিফ পরিচালিত \'দূরবীণ দূরত্ব সময়\' নাটকটি এনটিভিতে প্রচার হয় গত ২৪ আগস্ট। এতে অর্ষার অভিনয় বেশ প্রশংসিত হয়। নাটকে তার সহশিল্পী হিসেবে ছিলেন আজাদ আবুল কালাম ও অপর্ণা। ছবি : মোহসীন আহমেদ কাওছার।
তারেক রহমানের কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে বগুড়া জেলা বিএনপির মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত
বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে বগুড়া জেলা বিএনপির উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার বাইতুর রহমান সেন্ট্রাল মসজিদে মিলাদ ও দো\'য়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ মীর শাহে আলম সহ অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ সভাপতি ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, মাহবুবর রহমান বকুল, আলী আজগর তালুকদার হেনা, আব্দুর রহমান, খাজা ইফতেখার আহমেদ, , মোঃ শোক রানা, আব্দুর রশিদ, মতিউর রহমান মতি, লাভলী রহমান, মোশারফ হোসেন, এম আর ইসলাম স্বাধীন, শেখ তাহাউদ্দিন নাহিন, মাফতুন আহমেদ খান রুবেল, সহিদ উন নবী সালাম, জেলা যুব দলের সভাপতি সিপার আল বখতিয়ার, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মেহেদী হাসান হিমু, খাদেমুল ইসলাম খাদেম, শাহাবুল আলম পিপলু, হাসানুজ্জামান পলাশ, পলিন তালুকদার, নিলুফা কুদ্দুস, নাজমা আকতার, শফিকুল ইসলাম শফিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। দো\'য়া মাহফিলে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সুস্থতা কামনা এবং দেশের মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করা হয়।
প্রতি বছর বন্যায় ভাঙছে দাঁতভাঙ্গা-রৌমারী রাজীবপুর সড়ক : এলাকাবাসীর দুর্ভোগ
কুড়িগ্রাম জেলার সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগের অধীনে দাঁতভাঙ্গা-রৌমারী-রাজীবপুর ৩০ কিলোমিটার সড়ক প্রতি বন্যায় সড়কের কোথাও না কোথাও ভেঙ্গে যাচ্ছে। সড়কটি এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থার মেরুদন্ড বলা হয়ে থাকে। আবার বেড়িবাঁধ হিসেবে ব্যবহার হয়ে থাকে। কিন্তু গত ৫ বছর থেকে প্রতিবার বন্যার সময়ে সড়কের কোথাও না কোথাও ভেঙ্গে যাওয়ার ফলে এলাকাবাসীকে যাতায়াতে দুর্ভোগে পড়তে হয়। এলাকার উন্নয়নে বাধাগ্রস্ত হয়ে থাকে। একবার ভেঙ্গে গেলে তা মেরামত করতে ৬ মাস পর্যন্ত সময় লেগে যায়। আর ওই সময়ে রৌমারী-ঢাকা রুটে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। এবারের বন্যায়ও সেই একই কাহিনী। গত ৩১ আগস্ট বন্যার পানির চাপে ওই সড়কের শিবেরডাঙ্গী নামক স্থানে ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে রৌমারী ও রাজীবপুরবাসী। এর আগে ২০১৩ সালের বন্যায় ওই সড়কের গোলাবাড়ি নামক স্থানে, তার আগের বছর ঝগড়ারচর নামক স্থানে ভেঙে যায়। একইভাবে শিবেরডাঙ্গী বাজার নামক স্থানে ও কোমরভাঙ্গি নামক স্থানেও ভেঙ্গেছিল। বালিমাটির সড়কটি পাকা হলেও অপ্রশস্থ। ব্রহ্মপুত্র নদ সড়কের কাছে হওয়ায় পানির চাপ থাকে বেশি। সাধারণ মানুষ, বাস ও ট্রাক চালক ও সওজের প্রকৌশলীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে ওইসব তথ্য। ২০১২ সালে বন্যায় ভেঙ্গে যাওয়া ওই সড়কের ঝগড়ার চর নামক স্থান এখনও মেরামত করা হয়নি। ওই ভাঙ্গা স্থানকে কেন্দ্র করে সড়কের পূর্ব ও পশ্চিম পাশের এলাকাবাসী দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ায় মেরামত কাজ আটকে আছে বলে জানা গেছে। এলাকার এক পক্ষ ভাঙা স্থানে চাচ্ছে সস্নইস গেট আবার অপর পক্ষ সস্নুইসগেট নির্মাণের বিরোধিতা করে ক্ষতস্থানে ভরাটের দাবি করছে। এনিয়ে গত দুই বছর থেকে দুইপক্ষ তাদের দাবি বাস্তবায়ন কার্যকর করার জন্য এলাকায় মিছিল মিটিং এবং উপজেলা প্রশাসন ঘেরাওয়ের মতো কর্মসূচি পালন অব্যাহত রেখেছে। এর ফলে ওই ক্ষতস্থানে কোনো কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করেনি কর্তৃপক্ষ। রৌমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী জানান, ওই সড়ক রক্ষা করতে হলে বেশ কয়েক স্থানে সস্নুইস গেট নির্মাণ করতে হবে। যাতে বন্যার সময় পানি খুব বেশি হলে ওই সস্নুইস গেট ব্যবহার করা যায়। রৌমারী মোটরশ্রমিক ইউনিয়নের মহিউদ্দিন মহির জানান, ওই সড়কের বড়াইকান্দি থেকে রৌমারী থানা মোড় এবং কর্তিমারী থেকে রাজীবপুরের জালচিরাবাধ পর্যন্ত সড়কের পশ্চিমপাশে প্যালাসাইট নির্মাণ করলে বন্যা থেকে রক্ষা করা যাবে সড়কটি। সওজ\'র কুড়িগ্রাম নির্বাহী প্রকৌশলী হামিদুল হক জানান, দাঁতভাঙ্গা থেকে রাজীবপুর পর্যন্ত ওই সড়কটি যেহেতু বেড়িবাঁধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে তাই সড়কের ৫টি স্থানে সস্নুইসগেট নির্মাণ করলে বন্যার সময় আর সড়ক ভাঙ্গবে না। এ বারের বন্যায় ভেঙ্গে যাওয়া শিবেরডাঙ্গী নামক স্থানের ক্ষত মেরামত প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এরই মধ্যে কার্যক্রম শুরু হয়েছে। বিষয়টিকে এমারজেন্সি হিসেবে দেখা হচ্ছে। আগামি ১০/১২ দিনের মধ্যে ওই ভাঙ্গাস্থান মেরামত করা হবে।
নবাবগঞ্জে আদিবাসী বৃদ্ধা লাইলি মুরমু বয়স্ক ভাতার কার্ড চান
দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার অসহায় আদিবাসী বৃদ্ধা লাইলি মুরমু (৭৫) বয়স্ক ভাতার কার্ড চায়। তিনি উপজেলার পুটিমারা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের টঙ্গী শ্যামপুর গ্রামের মৃত সুবল হাসদার স্ত্রী। লাইলি মুরমু ইতিপূর্বে মাঠে ঘাটে শ্রমিকের কাজ করে দিনাতিপাত করলেও বর্তমানে বয়সের ভারে নুয়ে পড়ার কারণে আর কাজ কর্ম করে খেতে পারেন না। জীবন বাঁচার তাগিদে এখন মানুষের দ্বারে দ্বারে ভিক্ষা করে দিনাতিপাত করছেন। গতকাল মঙ্গলবার লাইলি মুরমুর জীর্ণ কুঠিরে গেলে তিনি জানান, পৃথিবীতে তার আপন বলতে কেউ নেই। থাকেন ছোট একটি কুঠিরে। জীর্ণ কুঠিরের উঠানে বসে দুঃখ করে বললেন তার একটি মাত্র মেয়ে ছিল। বিয়ের পর সেও মারা গেছে। স্বামী সুবল হাসদা মারা গেছেন প্রায় ৬/৭ বছর পূর্বে। স্বামী মারা যাবার পর থেকে তিনি নিজে শ্রম দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেছেন। এখন সেটাও আর পারেন না। দিন চলে ভিক্ষা করে। সরকারিভাবে কোন অনুদান পান না। তার ভাষায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিকট বারবার ধরনা দিয়েও কোন সরকারি সুবিধাদি পাননি। তিনি বললেন কে দেখবে আমার দুঃখ কষ্ট। এলাকার মানুষের কথা হল তাকে সরকারিভাবে সাহায্যের ব্যবস্থা করে দেয়া হোক। বিষয়টি নিয়ে ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, নতুন কার্ড না আসলে দিব কেমন করে। কার্ড আসুক দেখা যাবে। উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার রোকনুজ্জামান মন্ডল বলেন, নতুন উপকারভোগীর নামের তালিকা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে চাওয়া হয়েছে। তালিকা আসলে বিষয়টি দেখা হবে।
মোকাবিলায় নৌকায় বসানো হয়েছে ওয়াটার প্লান্ট
বগুড়ার সারিয়াকান্দির সর্বত্রই বন্যার পানি থৈ থৈ করছে। সারিয়াকন্দিতে বিশুদ্ধ পানি সংকট মোকাবিলায় মাঠে নেমেছে স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান, জেলা প্রশাসন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর। পানিবাহিত রোগে কেউ যেন আক্রান্ত না হয় এই চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ চলছে। উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের মধ্যে ১১টি ইউনিয়নের প্রায় ৬ হাজার নলকূপ বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। গত এক সপ্তাহ ধরে এলাকায় ছিল সুপেয় পানির তীব্র সংকট। বিশুদ্ধ পানির অভাবে বাধ্য হয়ে অনেককে পান করতে হয়েছে নদীর পানি। পানিবাহিত রোগ ছড়িয়ে পড়ার আগেই বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের জন্য মাঠে নেমেছে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর এবং বেসরকারি সংস্থা। গতকাল থেকে তিনটি ভ্রাম্যমাণ ওয়াটার প্লান্ট চালু করেছে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর ও একটি বেসরকারি সংস্থা। বিশুদ্ধ পানির জন্য দুর থেকে মানুষ ছুটে আসছে ভ্রাম্যমাণ ওয়াটার প্লান্টের কাছে। কিন্তু বেশি পানি সংরক্ষণের ব্যবস্থা নেই অনেকের কাছে। যার কাছে যা আছে তাতে পানি সংরক্ষণ করছে। নৌকায় বসানো হয়েছে এই ওয়াটার প্লান্ট । নদীর পানি বিশুদ্ধ করা হচ্ছে। ঘন্টায় ২ হাজার লিটার বিশুদ্ধ করে সরবরাহ করা হচ্ছে এমনটাই জানালেন সারিয়াকান্দির ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রত্যায় হাসান ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অখিল চন্দ্র। সারিয়াকান্দি উপজেলার কামালপুর, চন্দনবাইশা ও বোহাইল ইউনিয়নে বিশুদ্ধকরণ ওয়াটার প্লান্ট সরবরাহ করা হচ্ছে। জেলা বন্যা নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানান হয়েছে, শুধুমাত্র সারিয়াকান্দিতে ৬ হাজার ৫১৫ টি নলকূপ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত ২৫টি নতুন নলকূপ বসানো হয়েছে। বন্যার পানিতে নিমজ্জিত ৩০টি নলকূপ উচু স্থানে বসিয়ে তা পানি পানের উপযোগী করা হয়েছে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ পানি ভর্তি ১০ লিটারের ৩০০ জ্যারিকেন সরবরাহ করা হয়েছে। ২৫ হাজার পানিবিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট সরবরাহ করা হয়েছে। সারিয়াকান্দির কয়েকটি ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে মানুষ বিশুদ্ধ পানি সংগ্রহের জন্য দুর থেকে আসছে। প্লান্ট দিয়ে ঘন্টায় ২ হাজার লিটার পানি সরবরাহ হচ্ছে তাই পানি নিয়ে কোন সংকট হচ্ছে না। পানি সংরক্ষনের জন্য বানভাসি মানুষের কাছে পর্যাপ্ত কলস, বালতি, হাঁড়ি নেই। চন্দনবাইশা এলাকার মানুষ জানান রাতের অন্ধকারে হঠাৎ বন্যার ছোবলে অনেকেই পানি সংরক্ষনের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী আনতে পারেনি। পানি সংরক্ষণের ব্যবস্থা নাই বা থাক তাতে কিছু যায় আসে না। জ্যারিকেন ভর্তি পানি সরবরাহ করাও হচ্ছে। জেলা প্রশাসনের সকল এডিসি, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সকলেই এখন বন্যা দূর্গতদের পাশে।
টিএমএসএস টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটের ওরিয়েন্টেশন ও অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত
টিএমএসএস টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটের ওরিয়েন্টেশন ও অভিভাবক সমাবেশ গতকাল মঙ্গলবার বগুড়ার ঠেঙ্গামারাস্থ আল্লামা অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। টিএমএসএস এর নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপিকা ড. হোসনে আরা বেগমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জন প্রশাসন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব মোঃ শফিকুল ইসলাম। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, কারিগরি শিক্ষা লাভ করে কাউকে বেকার বসে থাকতে হয় না। দেশকে এগিয়ে নিতে কারিগরি শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বগুড়া সরকারী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার মোঃ গোলাম মোস্তফা, বগুড়া কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার মোঃ মিজানুর রহমান, টিএমএসএস পাবলিক স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ এস এম জামসেদ আলী, টিএমএসএস এর আজীবন সদস্য আনোয়ারুল ইসলাম বাচ্চু, টিএমএসএসএর সাধারণ পরিষদ সদস্য ড.মোঃ শাহজাহান কবীর, উপ-নির্বাহী পরিচালক বিএম কামরুজ্জামান, টিএমএসএস শিক্ষা ডমিনের প্রধান প্রফেসর মোঃ আব্দুল মান্নান প্রমূখ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন টিএমএসএস টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউট (টিটিইআই) এর ডমিন প্রধান ও টিএমএসএস এর পরিচালক মোঃ জাকির হোসেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন টিটিইআই\'র উপাধ্যক্ষ মোঃ সাজ্জাদুল বারী সুমন। অনুষ্ঠানে ভাল ফলাফলের জন্য ৭ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়। খবর বিজ্ঞপ্তির।
হবিগঞ্জের সাতছড়ি থেকে আবারও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার
হবিগঞ্জের সাতছড়ির পাহাড় থেকে আবারও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে র‌্যাব। গতকাল মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফায় অভিযানে গভীর বন থেকে দু\'টি গর্ত খুঁড়ে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এখানে পাহাড়ে আরও বাংকার, অস্ত্র এবং গোলাবারুদ মজুদ থাকতে পারে বলে ধারণা করছে র‌্যাব। উদ্ধারকৃত এসব অস্ত্রের সবগুলোই সচল রয়েছে। গতকাল দুপুরে র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পে এ ব্যাপারে একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের প্রধান মুফতি মাহমুদ জানান, গত জুন থেকে শুরু হওয়া সাতছড়ি অভিযানে র‌্যাব প্রায় ১২ হাজার বিভিন্ন ধরনের অস্ত্রের গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে। এছাড়া মেশিনগান, রকেট লঞ্চার, রকেট লঞ্চারের গোলা, রকেট লঞ্চারের চার্জারসহ বিভিন্ন রকম অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। অভিযান একটি চলমান অভিযান। এটি সব সময় চলছে। গত ২৯ আগস্ট থেকে র‌্যাব পুনরায় এখানে অভিযানে নামে। টানা অভিযান চলাকালে আজকের (মঙ্গলবার) এসব অস্ত্র উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ৯টি এসএমজি, ১টি এসএমসি, ১টি বেটাগান, ১টি ৭.৬২ মিলিমিটারের অটো রাইফেল, ৬টি এসএলআর, ২টি এলএমজি, ১টি স্নাইপার টেলিস্কোপ সাইড এবং ২ হাজার ৪শ\' রাউন্ড গুলি। এ অভিযান এখনও চলমান আছে। তা অব্যাহত থাকবে। এ অস্ত্র উদ্ধারের ব্যাপারে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হবে। তার পরই জানা যাবে এগুলোর উৎস। অভিযানকালে কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। অস্ত্রগুলো প্যাকেট করে কন্টেইনারে ভরা ছিল। কন্টেইনারসহ এগুলো গর্তে রাখা ছিল। তাই সেগুলো ভাল রয়েছে। এগুলো আগের অভিযান স্থল থেকে অনেক ভেতরে পাহাড়ে দু\'টি গর্তে রাখা ছিল। উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই র‌্যাব গোয়েন্দা নজরদারিতে রাখার পর তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গত ১ ও ৩ জুন উদ্যানের প্রধান সড়ক থেকে প্রায় মাত্র এক কিলোমিটার দূরে প্রথমে একটি পাহাড়ে ৩টি বাংকারের সন্ধান পায় র‌্যাব। এরপর আরও দু\'টি বাংকারের সন্ধান পায়। পরবর্তীতে আরও দু\'টি বাংকারের সন্ধান মিলে। প্রথম দিনে ট্যাংক বিধ্বংসী রকেট গোলাসহ বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এদিন দুপুরে র‌্যাব মহাপরিচালক মোখলেছুর রহমান সাতছড়িতে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, তদন্তের পরই সব প্রশ্নের উত্তর বেরিয়ে আসবে। তবে অভিযান অব্যাহত থাকবে। সংবাদ সম্মেলনে উদ্ধারকৃত অস্ত্র উপস্থাপন করা হয়। এগুলোর মধ্যে ছিল এসব ২২২টি কামান বিধ্বংসী রকেট, ২৪৮টি রকেট চার্জার, ১টি রকেট লঞ্চার, ৪টি ৭ দশমিক ৬ মিলিমিটার মেশিনগান, ৫টি মেশিন গানের অতিরিক্ত খালি ব্যারেল, ১২ দশমিক ৭ মিলিমিটারের ১৩শ\' ৭৬ রাউন্ড বুলেট, ৭ দশমিক ৬ মিলিমিটারের ১২ হাজার ৩০০ রাউন্ড বুলেটসহ বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ। ৪ জুনও আরও অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার হয়।
ডিসেম্বরে বিয়ে করছেন রেলমন্ত্রী
বিয়ে করতে যাচ্ছেন সাতষট্টি বয়সী রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক। ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তিন বছরের পরিচিত পাত্রীকে ঘরে তুলবেন বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী নিজেই। তবে নাম, বয়স বা পরিচয় কোনোটাই জানা যায়নি। গতকাল মঙ্গলবার রেল মন্ত্রণালয়ে নিজ কক্ষে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে কিছুটা লাজুক ভঙ্গিতে তিনি বলেন, ইনশালাহ, বিয়ে করতে যাচ্ছি। ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে বিয়ের অনুষ্ঠান ঢাকা ও কুমিলায় হবে। হবু বউয়ের পরিচয় জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, পাত্রী মাস্টার্স ডিগ্রি পাস, এখন তিনি আইন পাসও করেছে। বিয়ের পর যদি আইন পেশায় যেতে চায় তাহলে সেটি তার ইচ্ছা। পাত্রীর নাম ও বয়সের বিষয়ে জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করে তিনি বলেন, গ্রামের সহজ সরল সাধাসিধে মেয়ে, ধীরে ধীরে সব জানতে পারবেন। মাস্টার্স পাস করে আইনেও পড়েছেন, তো বয়স বুঝতেই পারছেন। পাত্রী পরহেজগার, বোরকা ছাড়া চলে না। ভাল পরিবারের মেয়ে। তার বাড়ি কুমিল্লায়। এর বেশি বলা যাবে না। নাম জানতে চাইলে মুজিবুল হক বলেন, নাম এখনই বলা যাবে না, যদি ফিরে যায়! কুমিল্লা জেলার যে কোন উপজেলায় তার বাড়ি। কোন ঘটক বা কারো সহযোগিতায় বিয়ে হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, কোন ঘটক না, পাত্রীর সাথে আমার তিন বছর ধরে পরিচয়, পরিচয়ের সূত্র ধরেই বিয়ে করতে যাচ্ছি। তিন বছরের পরিচয়কে প্রেম বলা যায় কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিন বছর থেকে শুধু পরিচয়। এই পরিচয় থেকেই বিয়ের সিদ্ধান্ত। এর বেশি কিছু না। কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের বসুয়ারা গ্রামে ১৯৪৭ সালের ৩১ মে জন্মগ্রহণ করেন মুজিবুল। তথ্য অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, ১৯৬৬ সালের ছয় দফা, ৬৯\'র গণ-অভ্যুত্থান, নব্বুইয়ের স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন মুজিবুল। ১৯৯৬ সালে প্রথমবার সাংসদ নির্বাচিত হন। ২০১২ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়ে ১৫ সেপ্টেম্বর রেলপথ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান মুজিবুল। ২০১৩ সালের ২১ নভেম্বর পুনঃবণ্টনকৃত মন্ত্রিপরিষদে মুজিবুল রেলপথ এবং ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বধীন সরকারের এবারের মেয়াদেও গত ১২ জানুয়ারি রেলপথ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান কুমিল্লা-১১ আসনের সংসদ সদস্য মুজিবুল হক। ৬৭ বয়স বয়সে কেন এই সিদ্ধান্ত এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, দেখলাম মানুষের জীবনের শেষ বয়সে একজন সঙ্গিনী দরকার, যাতে পরবর্তী জীবনে নিঃসঙ্গ না থাকতে হয়, বাকি জীবনটা ভালভাবে কাটানোর জন্য। বিয়ের পর নতুন বউকে নিয়ে ঢাকায় সংসার পাতবেন বলেও জানান তিনি।
জাপা চেয়ারম্যান এরশাদের ভাই সাবেক এমপি মোজাম্মেল হকের ইন্তেকাল
প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের ছোট ভাই সাবেক সংসদ সদস্য মোজাম্মেল হক লালু গত সোমবার রাতে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন। ইন্নালিল্লাহে ...রাজেউন)। তার বয়স হয়েছিলো ৮১ বছর। পরিবারের স্বজনরা জানায় বেশ কিছুদিন ধরে তিনি হৃদরোগে ভুগছিলেন। গত সোমবার রাতে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দ্রুত রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে নগরীতে শোকের ছায়া নেমে আসে। দলের নেতা কর্মীসহ স্বজনরা তাদের পৈতৃক বাড়ি স্কাইভিউ বাস ভবনে ছুটে যান। গতকাল সকালে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ, বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, সাবেক মন্ত্রী জিএম কাদের, সংসদ সদস্য সাহানা বেগম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান কাজী মোঃ জুননুন, আওয়ামী লীগ নেতা শামীম তালুকদার তাকে শেষ দেখা দেখতে আসেন। এ সময় হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা ঘটে। অনেকেই ফুল দিয়ে তাকে শেষ বিদায় দেন। তিনি এক ছেলে ও ২ মেয়ে রেখে গেছেন। তার একমাত্র ছেলে সাবেক এমপি হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আশিফ জানান, মোজাম্মেল হক লালু কুড়িগ্রাম ৩ আসন (উলিপুর) থেকে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি একজন ব্যাংকার ছিলেন। জনতা ব্যাংকে ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার পদে চাকরি করে অবসরে যান। এরপর ১৯৯০ সালে তার বড় ভাই এরশাদ রাষ্ট্রপতির পদ থেকে পদত্যাগ করার পর গ্রেফতার হলে লালু তার ভাইয়ের মুক্তির জন্য এরশাদ মুক্তি পরিষদ গঠন করে রংপুর অঞ্চলে ব্যাপক গণসংযোগ করে এরশাদের মুক্তির আন্দোলনকে বেগবান করতে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছিলেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি সপরিবারে তাদের পৈতৃক নিবাস রংপুর নগরীর নিউ সেনপাড়া মহল্লায় স্কাই ভিউ বাসভবনে বসবাস করতেন। গতকাল মঙ্গলবার বাদ আছর মরহুমের নামাজে জানাযা রংপুরের কেরামতিয়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। পরে তাকে মুন্সিপাড়া কবরস্থানে তার বাবা ও মায়ের পাশে সমাহিত করা হয়। এদিকে মোজাম্মেল হক লালুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রংপুর সিটি মেয়র আলহাজ সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু, শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান টুটুল, জাতীয় পার্টির মহানগর সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সালাহ উদ্দিন কাদেরী, জেলা সাধারণ সম্পাদক আবুল মাসুদ চৌধুরী নান্টু, জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, জেলা বিএনপির সভাপতি এমদাদুল হক ভরসা, মহানগর বিএনপির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন, মহানগর দোকান মালিক সমিতির মহাসচিব রেজাউল ইসলাম মিলন, সিটি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাকিল আহম্মেদ প্রমুখ।
 
 
 
খুঁড়িয়ে চলছে ১৪ দলীয় জোটের বাম দলগুলো
গুলিবিদ্ধ দম্পতির লাশ
বনানীতে দাফন উদ্ধারকৃত অস্ত্র যাচ্ছে সিআইডিতে
স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা অফিস :
আফসার গ্রুপের মালিক শিল্পপতি আব্দুর রব এবং তার স্ত্রী রোকসানা পারভীনের মৃত্যুর ঘটনায় অকুস্থল থেকে উদ্ধার করা আগ্নেয়াস্ত্রটি ব্যালাস্টিক পরীক্ষার জন্য অপরাধ তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) পাঠাতে আদালতের অনুমতি চেয়েছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার আদালতের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছে জানিয়ে ক্যান্টনমেন্ট থানার ওসি ওসি আতিকুর রহমান জানান,... বিস্তারিত
 
তিস্তার পানি চুক্তি নিয়ে আনিসুল
মনমোহনের আশ্বাসেই আস্থা
সংসদ রিপোর্টার :
তিস্তা চুক্তির বিষয়ে ভারতে সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বাংলাদেশ সফরকালে মৌখিকভাবে নিশ্চিত করেছেন। তার এমন আশ্বাসের পরে তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যার জন্য আন্তর্জাতিক আদালতে যাওয়ার আপাতত কোনো পরিকল্পনা নেই সরকারের। গতকাল মঙ্গলবার দশম জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনের দ্বিতীয় কার্যদিবসে এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে পানিসম্পদ মন্ত্রী... বিস্তারিত
 
ধর্মকে ভিত্তি করে দল হতে পারে না : তারেক
বিডিনিউজ :
জোটে একাধিক ধর্মভিত্তিক দল থাকলেও ধর্মকে কেন্দ্র করে কোনো রাজনৈতিক দল হতে পারে না বলে মনে করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সোমবার ইস্ট লন্ডনের একটি মিলনায়তনে যুক্তরাজ্য বিএনপি আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, রাজনীতিতে ধর্মের অবদান থাকতে পারে। কিন্তু ধর্মকে কেন্দ্র করে... বিস্তারিত
 
 
ভিডিও
রাশিচক্র আজ ঢাকায় আজ বগুড়ায়
 
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের চরমপন্থিরা আত্মসমর্পণের আহ্বানে সাড়া দেবে বলে মনে করেন কি?
হ্যাঁ
উত্তর নেই
না
 
 
 
আজকের ভিউ
নামাজের সময়সূচী
ওয়াক্ত
সময়
ফজর
03:50
জোহর
12:7
আছর
04:42
মাগরিব
06:54
এশা
08:20
 
 

সম্পাদকঃ মোজাম্মেল হক, সম্পাদক কর্তৃক ন্যাশনাল প্রিন্টিং প্রেস, শিল্পনগরী বিসিক বগুড়া এবং ১৬৭ ইনার সার্কুলার রোড, (আরামবাগ) ইডেন কমপ্লেক্স, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও চকযাদু রোড, বগুড়া হতে প্রকাশিত।
ফোন ৬৩৬৬০,৬৫০৮০, সার্কুলেশন বিভাগঃ ০১৭১৩২২৮৪৬৬, বিজ্ঞাপন বিভাগঃ ৬৩৩৯০, ফ্যাক্সঃ ৬০৪২২। ঢাকা অফিসঃ স্বজন টাওয়ার, ৪ সেগুন বাগিচা। ফোনঃ ৭১৬১৪০৬, ৯৫৬০৬৬৯, ৯৫৬৮৮৪৬, ফ্যাক্সঃ ৯৫৬৮৫২২ E-mail : dkaratoa@yahoo.com . . . .

Powered By: